এরা নাকি আমাদের সভ্যতা শেখায়! মানবাধিকার শেখায়!

কাল পুরো রাত ঘুমাইনি।আমেরিকান প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেট দেখার জন্য রাত জেগে ছিলাম। আমাদের এখানকার সময়ে রাত প্রায় তিনটায় শুরু হয়েছে ডিবেট।শেষ হতে হতে পাঁচটা বেজে গিয়েছে।সকাল বেলা মাস্টার্সের ছাত্রদের সঙ্গে ছয় ঘণ্টার এক টানা ক্লাস ছিল। ক্লাস শেষে খানিক আগে বাসায় ফিরেছি।পুরো রাত না ঘুমিয়ে সকাল থেকে বিকেল অবদি এক টানা ক্লাস নিয়ে যতটা না ক্লান্ত লাগছে; তার চাইতেও বেশি ক্লান্ত লাগছে এই ভেবে- পৃথিবীটা আসলে কোন দিকে যাচ্ছে!

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দুই দলের দুই প্রার্থী ট্রাম্প এবং বাইডেন।দুই ঘণ্টার বিতর্কে ট্রাম্প বোধকরি ৬০ থেকে ৭০ বার বাইডেনের কথার মাঝে’ই কথা বলা শুরু করেছে! তাকে কথা’ই বলতে দেয়নি!মডারেটর বার বার ট্রাম্প’কে সতর্ক করে দিচ্ছিল- এভাবে কথার মাঝখানে কথা বলা ঠিক হচ্ছে না!এতে পাগলাটে এই প্রেসিডেন্ট ক্ষান্ত হয়নি!শুধু এটা হলেও হতো! ট্রাম্পকে জিজ্ঞেস করা হয়েছে-তুমি কি তোমার সমর্থক হোয়াইট সুপ্রেমিস্টদের (যারা গাঁয়ের রঙ স্রেফ সাদা হওার কারনে নিজেদের সেরা মনে করে!) এইবার থামতে বলবে?ট্রাম্প এর উত্তরে বলেছে- প্লিজ স্ট্যান্ড ব্যাক এন্ড স্ট্যান্ড বাই!

চিন্তা করে দেখুন অবস্থা! শুধু আমেরিকা না, আমার মতো পুরো পৃথিবীর হাজারো মানুষ পুরো রাত জেগে এই বিতর্ক সরাসরি দেখেছে।
অথচ এই প্রেসিডেন্ট কিনা বলে বসেছে- “স্ট্যান্ড বাই!”এমন আচরণের পর আপনি হয়ত ভাবতে পারেন- আমেরিকা শিক্ষিতদের দেশ। সভ্য মানুষদের দেশ। তারা নিশ্চয় এই বিতর্ক দেখে ট্রাম্পকে সাপোর্ট করবে না!ভুল ভাবছেন। ট্রাম এমনিতেই জরিপ গুলোতে পিছিয়ে ছিল।
গতকালের বিতর্কের পর তার সমর্থন শুনতে পাচ্ছি খানিক বেড়েছে!

পুরো বিতর্কে বাইডেন ভালো ভাবে কোন কথা শেষ’ই করতে পারেনি। ওর মুখের কথা কেড়ে নিয়ে ট্রাম্প ক্রমাগত মিথ্যা বলে গিয়েছে। উল্টো বর্ণবাদকে উস্কে দিয়েছে।ফলাফল- ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা একটু হলেও বেড়েছে!মনে আছে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলাকারী’র ঘটনা? যে নিজেকে ট্রাম্পের সাপোর্টার দাবী করেছিল?জানি না ভবিষ্যতে কি অপেক্ষা করছে। তবে এতো টুকু পরিষ্কার বুঝতে পারছি- ট্রাম্প যদি আবারও হোয়াইট হাউজের টিকেট পায়, তাহলে নিউজিল্যান্ডের মতো ঘটনা হয়ত হরহামেশা দেখতে হতে পারে!এরা নাকি আমাদের সভ্যতা শেখায়! মানবাধিকার শেখায়!এরাই নাকি মানবিক,আবার এরাই নাকি অতি আধুনিক,তাইতো সেই ছেলিটির মত বলতে হয় ইহা হাস্যকর ইহা হাস্যকর।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *